কাঁচকি মাছ দিয়ে আলু ভাজি

কাঁচকি মাছ দিয়ে আলু ভাজি
কাঁচকি মাছ দিয়ে আলু ভাজি

ছোট মাছ খেতে যেমন সুস্বাদু, তেমনই পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ। আসুন, আমরা জেনে নিই বাসায় সহজে আলু দিয়ে কাচকি মাছের তরকারি রান্নার পদ্ধতি। তার আগে চলুন দেখে নিই কী কী উপকরণ লাগবে—

উপকরণঃ

*আলু ৪০০ গ্রাম

*কাঁচকি মাছ ২৫০ গ্রাম

*পিঁয়াজ ২ টে চামচ

*রসুনকুচি ২ চা চামচ

*হলুদ গুঁড়ো আধা চা চামচ

*মরিচ গুঁড়ো ১ চা চামচ

*আস্ত জিরা আধা চা চামচ

*গরম মসলা গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ (ইচ্ছে)

*লবণ স্বাদমতো

*সরিষার তেল পরিমাণ মতো

প্রণালিঃ

আলু স্লাইস করে কেটে ধুয়ে রাখুন।পাত্রে তেল গরম দিয়ে আস্ত জিরা দিন। জিরা ফুটে উঠলে পিঁয়াজ ও রসুন কুচি দিয়ে ভাজুন।পিঁয়াজ-রসুন নরম হয়ে আসলে হলুদ ও মরিচ গুঁড়ো দিয়ে পরিমাণ মতো পানি যোগে মসলা কষিয়ে নিয়ে কাঁচকি মাছ যোগে আবারও কষিয়ে নিন। এবার আলু ও স্বাদমতো লবণ দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন। চুলার আঁচ কমিয়ে পাত্রটি ঢেকে দিন। কিছু সময় পরপর নেড়েচেড়ে দিন যেন পুড়ে না যায়।আলু সিদ্ধ হয়ে আসলে গরম মসলা গুঁড়ো যোগ করে আরও কিছুসময় ভেজে নামিয়ে নিন।

মাছে যারা ভাজা গরম মসলার ফ্লেভার অপছন্দ করেন তারা গরম মসলার পরিবর্তে ধনিয়াপাতা কুচি,আস্ত কাঁচামরিচ যোগ করতে পারেন। ভাজি নামিয়ে নেয়ার আগে আস্ত কাঁচামরিচ ও ধনিয়াপাতা কুচি যোগ করে ২ মিনিটের জন্য পাত্রটি ঢেকে দিবেন।এতে কাঁচামরিচ ও ধনিয়াপাতার সুগন্ধ দারুণভাবে ভাজিতে ছড়িয়ে পড়বে।

বিঃদ্রঃ আলু দিয়ে কাঁচকি মাছ ভাজি করার ক্ষেত্রে আলু কুচি করে নেয়ার পদ্ধতিই প্রচলিত। কুচি করে নিয়ে ভাজি এবং স্লাইস করে নিয়ে ভাজিতে স্বাদের কিছুটা তারতম্য হয় বটে।আলুর ক্ষেত্রে আমি ব্যক্তিগত ভাবে স্লাইস করে ভাজিটাই বেশি পছন্দ করি। আপনারা চাইলে আপনাদের পছন্দ অনুযায়ী যেকোন পদ্ধতিই বেছে নিতে পারেন।

Leave a Comment