মুরগির মাংসের ঝোল

মাংসের মধ্যে মুরগির মাংস সব চাইতে সুস্বাদু এবং সব চাইতে বেশি স্বাস্থ সম্মত। নিয়মিতই সবাই মুরগির মাংস খেয়ে থাকি। হ্রদরোগীদের তেল কম খেতে বলা হয় আসুন তেল ছাড়া মুরগী রান্নার রেসিপি জেনে নেই—

উপকরণ : 

মুরগীর মাংস -চামড়া ও তেল চর্বি ছাড়া-৭৫০ গ্রাম ছোট বা মাঝারী সাইজের মুরগী হলে ভাল।

টকদই – হাফ কাপ

টমেটো কুচি – ১টা বড়

আদা বাটা -১ চা চামচ

রসুনবাটা – ১ চা চামচ

পেয়াজ কুচি -১ /২ কাপ

হলুদ গুড়া -১চা চামচ

মরিচ গুড়া-হাফ চা চামচ

কাঁচা মরিচ ২টি ফালি করা

গরম মসলা হাফ চা চামচ

জিরা গুড়া হাফ চা চামচ

তেজপাতা -১ টি

দারচিনি এলাচ লং

গোটা -২ টা

লবন স্বাদ মত

পানি ১ কাপ

সবুজ ক্যাপসিকাম কুচি -হাফ কাপ (ইছচা না দিলেও হয়)

প্রণালী : 

১.প্রথমে মুরগী গুলো কেটে পিস করে নিতে হবে।

২.এবার একটি পাএে দই নিয়ে মুরগী ও বাটা মসলা ও হলুদ মরিচ গুড়া মসলা দিয়ে মাখিয়ে ফেলতে হবে ।

৩.এভাবে ম্যারিনেট করে ১ ঘন্টা রাখতে হবে।

৪.এবার একটি সসপ্যান চুলায় বসাতে হবে একটু যখন গরম হবে তখন পেয়াজ কুচি দিতে হবে সাথে একটু লবন ও গোটা এলাচ দারচিনি তেজ পাতা দিয়ে যখন পেয়াজ একটু নরম হবে তখন মাখানো মুরগী টা দিয়ে দিতে হবে।

৫.যখন মুরগী একটু পানি ছাড়বে তখন গরম মসলা গুড়া জীরা গুড়া টমেটো কুচি ও ক্যাপসিমাম কুচি দিয়ে দিতে হবে।

৬,এবার এক কাপ গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিতে হবে চুলার আচ মাঝারী হবে কাচা মরিচ দিয়ে দিতে হবে।

৭.আস্তে আস্তে ঝোল টেনে আসবে তখন একটু ধনেপাতা বা পুদিনা পাতা দিয়ে একটু ঢেকে নামিয়ে ফেলতে হবে লবন একটু দেখে নিতে হবে স্বাদ ঠিক আছে কিনা ।

বেশ হয়ে গেল মজাদার মুরগী ভুনা।

টিপস—

এই রান্নায় কোন তেল নাই তাই দই দেয়া হয় ।

মরিচ গুড়া শুধু গন্ধের জন্য দেয়া হয় তাই কম দিতে হবে।

কাঁচা মরিচের ঝালে রান্না হবে।

টমেটোর জন্য মুরগীর কালার লালচে হয়।

সবুজ ক্যাপসিকাম দিলে ভাল না দিলেও হবে।

পুদিনা ও ধনেপাতা এন্টি অক্সিডেন্ট তাই দিলে ভাল।

কেঊ ঝোল ঝোল খেতে চাইলে পানি একটু বাড়িয়ে দিলেও হবে।

পুস্টিমূল্য—

মুরগী থেকে প্রোটিন পাওয়া যাবে সাথে টক দই কোলেস্টেরল কমায়।

টকদই প্রেসার কে কন্ট্রোল করে ও হার্টের রক্তচাপকে নিয়ন্রন করে।

টমেটোতে আছে লাইকোপ্যান ও ভিটামিন এ বি সি ও ম্যাগনেসিয়াম ও পটাশিয়াম যা হার্টের রোগের জন্য ভাল।

যেহেতু তেল নাই তাই ক্যালরী কম ।

তাই যারা ওজন কমাতে চান বা কোলেস্টেরল কমাতে চান তারা এটা খেতে পারেন।

Leave a Comment